ধর্মঘটের কারণে পরপর দু’দিন বন্ধ থাকছে ব্যাঙ্ক পরিষেবা! ভোগান্তিতে পড়তে পারেন গ্রাহকরা! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:-দেশের এই ভয়াবহ অর্থনৈতিক অবস্থার মধ্যে দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার যে ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছে তাতে চিন্তার ভাঁজ সৃষ্টি হয়েছে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষের কপালে । বেশ কিছুদিন আগে 14 টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে বেসরকারিকরণের পথে নিয়ে গিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার । তবে পুনরায় আরো দুইটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের বেসরকারিকরণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

তাই অল ইন্ডিয়া ব্যাংকিং ইউনিয়ন ফোরামের তরফ থেকে 2 দিন ব্যাপী একটি ধর্মঘট করা হয়েছে। এই ধর্মঘটের ফলে বন্ধ থাকবে এটিএম পরিষেবা। তাই যাদের টাকা পয়সার প্রয়োজন তারা অতি অবশ্যই আগে থেকে টাকা পয়সা তুলে রাখুন।নইলে ভোগান্তির শিকার হতে হবে আপনাকে ।

গত চার বছরে কেন্দ্রীয় সরকার 14 টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণ করে ফেলেছে। ব্যাঙ্কিং আইন সংশোধনী বিল আনায় এই বিষয়টি আরো অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই এর প্রতিবাদে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের পথে হাঁটতে চলেছে ব্যাঙ্ক কর্মী ইউনিয়নগুলি।এআইটিইউসি ‘র সর্বভারতীয় সম্পাদক অমরজিৎ কাউর বলেছেন, “যদি দেখা যায় সরকার বেসরকারিকরণের রাস্তা থেকে সরে আসছে না, তাহলে আগামী দিনে আমরা লাগাতার ধর্মঘটের রাস্তায় হাঁটবো।ডিসেম্বর মাসের 16 এবং 17 তারিখ এই দুই দিনব্যাপী বন্ধ থাকছে ব্যাংক গুলি ।

দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলকাতার মতন গত 24 নভেম্বর বেশকিছু সংগঠনের কর্মীরা দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন ।সেখানে যন্তর-মন্তর সামনে একটি পথ সভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন তারা সেই পথ সভায় যোগদান করেছিলেন কানাইয়া কুমার সহ আরো অনেক রাজনীতিবিদরা।

অল ইন্ডিয়া ব্যাংক অফিসার্স কনফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক এবং সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি সঞ্জয় দাস বলেছেন, “আমরা জানি আমাদের ধর্মঘটের ফলে সাধারণ মানুষের অনেক সমস্যার সৃষ্টি হবে ।কিন্তু মনে রাখা দরকার বেসরকারিকরণের হাত থেকে ব্যাঙ্কগুলিকে বাঁচানোর জন্য আমাদের সামনে আর কোনো রাস্তা খোলা ছিল না। যদি ব্যাংক বাঁচে তাহলে দেশের অর্থনীতি সূদৃঢ় থাকবে। দেশের সম্পদ বাঁচবে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button