ছুটিতে দীঘা ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করছেন? দেখে নিন খুব কম খরচের দুর্দান্ত এই থাকার জায়গাগুলি! রইল ভিডিওসহ বিস্তারিত ।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পুজো হোক বা অন্যান্য যেকোনো সময় আমরা সাধারণত বাইরে ঘুরতে যেতে পছন্দ করি ।প্রতিদিন কর্মব্যস্ততার ফলে একঘেয়েমি জীবন যখন হয়ে ওঠে তখন মন চাই বাইরে কোথাও থেকে নিরিবিলিতে একটু ঘুরে আসি। এবং সেটি যে কোন জায়গা হতে পারে। থাইল্যান্ড হতে পারে সিমলা হতে পারে মানালি হতে পারে এমনকি বাড়ির সামনে দীঘা হতে পারে ।কিন্তু ধরুন আপনি দীঘা চলে গেলেন।

তারপর যে দেখলেন এ সেখানকার হোটেলে রুম ভাড়া এতটাই বেশি যে সেটা আপনার পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়। তাহলে কি করবেতন? সেখান থেকে ঘুরে আসবেন? নাকি অতিরিক্ত টাকা দিয়েও সেখান থেকে যাবেন। সে ব্যাপারে একটা সমস্যা সৃষ্টি হবে অবশ্যই। এই সমস্যা যাতে আপনার না হয় তার জন্য আজকের এই প্রতিবেদনটি।

আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন যে দিঘাতে এমন একটি হোটেল রয়েছে যেখানে আপনি খুব স্বল্প মাত্রায় রুম ভাড়া পেয়ে যাবেন। পাশাপাশি খাবার-দাবারে খরচ থেকে শুরু করে একাধিক যাবতীয় তথ্য কিন্তু তুলে ধরা থাকবে আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে। সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি পড়ার অনুরোধ রইল। এবং আপনি যদি এমনটা মনে করে থাকেন যে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দীঘা যাবেন তাহলে অতি অবশ্যই প্রতিবেদনটি আপনার কাজে আসতে চলেছে।

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় দিঘাতে ইয়ুথ হোস্টেল তৈরি করা হয়েছে অর্থাৎ যুব হোস্টেল হোস্টেল। এটির উদ্বোধন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অরূপ বিশ্বাস । সরকারিভাবে দিঘাতে ঘুরতে যাওয়া প্রতিটি মানুষকে কম খরচে সুযোগ-সুবিধা প্রদান করার জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। যারা বাসে কলকাতা থেকে দীঘা যাচ্ছেন তারা বাসের পথেই এই হোস্টেলটি পেয়ে যাবেন।

তার পাশাপাশি সমুদ্র সৈকত থেকে হেঁটে মাত্র ৫ মিনিট দূরত্বে অবস্থিত এই হোটেলটি। রেলস্টেশনের একদম ধারে অবস্থিত এই ইয়ুথ হোস্টেল। এখানে আপনি প্রতি মাথাপিছু 200 টাকা করে রুম ভাড়া পেয়ে যাবেন। তার পাশাপাশি যদি কারো কেউ গ্রুপে আসতে চায় তাদের জন্য রয়েছে আধুনিক ব্যবস্থা ।জলের ব্যবস্থা থেকে শুরু করে খাবার-দাবারের সবকিছুই থাকছে এই হোস্টেলে মধ্যে। তার পাশাপাশি ব্যালকনিতে এক সুন্দর দৃশ্য উপভোগ করার সুযোগ পাবেন আপনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button